মুন্ডুমালায় আবারও মটরসাইকেল চুরি, আতঙ্ক

news paper

তানোর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৩-১০-২০২৩ দুপুর ২:৩৯

11Views

রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুন্ডুমালা বাজার হতে একের পর এক মটরসাইলে চুরির ঘটনা ঘটেই চলছে। মুন্ডুমালা বাজারে গত আগস্ট মাসেই অনন্ত ৬টি মটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটলেও মুন্ডুমালা তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ চোর সিন্ডিকেট এখনও সনাক্ত করতে পারেনি।
 
গত সেপ্টেম্বর মাসের ৭ তারিখে সর্বশেষ মটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটে। এর রেশ কাটতে না কাটতেই গতকাল ২ অক্টোবর সোমবার আবারো মুন্ডুমালায় মটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটে। আর চলতি বছরে শুধু মুন্ডুমালা পৌর বাজার হতে অন্তত ২০টি মটরসাইকেল চুরি হয়েছে।
 
 আজ ১০ টার সময় বাজারের গোলচত্তরের পাশে ডিসকভার-১৩৫ সিসির রাজ: ল-১১-১১৩৮ নম্বরের মটরসাইকেলটি রেখে খাওয়ার হোটেলে যাই মটরবাইকেলের মালিক রেজাউল করিম সেলিম মাষ্টার। মাত্র ৫ মিনিটের ব্যবধানেই তার মটরবাইকটি নিয়ে সটকে পড়ে চোর সিন্ডিকেটের সদস্যরা।
 
মটরসাইকেলের মালিক সেলিম মাষ্টার তার মটরসাইকেলটি না পেয়ে বিকেলে মুন্ডুমালা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে গিয়ে চুরির লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
 
মুন্ডুমালা বাজার হতে একের পর এক মটসাইকেল চুরি ঘটনায় মটরবাইক মালিকদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। আর চুরি হওয়া মটরসাইকেল উদ্ধার ও চোর সিন্ডিকেট সনাক্ত না হওয়া পুলিশের ভুমিকা নিয়েও অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। চলতি বছরেই শুধু মুন্ডুমালা বাজার হতে কমপক্ষে ২০টিও বেশি মটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটেছে।
 
এবিষয়ে মুন্ডুমালা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ (আইসি) ইন্সপেক্টর মনিরুল ইসলাম বলেন, মুন্ডুমালা বাজারে সিসি ক্যামেরা না থাকায় চোর ধরা যাচ্ছে না। এছাড়াও মটরবাইক মালিকেরা সচেতন হতে হবে। তবুও আমরা চেষ্টা করছি অল্প সময়ে চোর সিন্ডিকেটের সদস্য ধরা পড়বে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন