ঢাকা বৃহষ্পতিবার, ১৮ আগস্ট, ২০২২

জবি ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে মারামারি, থানায় মামলা


ইউছুব ওসমান, জবি  photo ইউছুব ওসমান, জবি
প্রকাশিত: ৬-৮-২০২২ দুপুর ১১:৫১
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) স্থগিত ছাত্রলীগের কমিটির সভাপতি ইব্রাহিম ফরাজি ও সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসাইনের গ্রুপের মধ্যে প্রেমঘটিত বিষয়কে কেন্দ্র করে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এতে সম্পাদক গ্রুপের কর্মী ও অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান মুন আহত হয়ে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেছেন। 
 
মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক নাহিদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গত বৃহস্পতিবার রাতে এ মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান মুন। নথি আদালতে পাঠানো হয়েছে। আসামিদের পেলেই গ্রেপ্তার করা হবে। 
 
এদিকে, এ মামলায় ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রাহিম ফরাজির গ্রুপের কর্মী বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী নওশের বিন আলম ডেভিড, একই শিক্ষাবর্ষের গণিত বিভাগের জাহিদুল ইসলাম হাসান ও পরিসংখ্যান বিভাগের অর্পণ সাহা শান্তসহ আরো ২৫-৩০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে।
 
মামলার এজহারে বলা হয়, ভুক্তভোগী মেহেদী হাসান মুন গত ৩ আগস্ট সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে ক্লাস শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের সামনে আসলে এক নাম্বার আসামি নওশের বিন আলম ডেভিড জরুরী প্রয়োজনের কথা বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ নং গেইটের সামনে নিয়ে যায়। পরে সেখানে ডেভিড, জাহিদুল ইসলাম হাসানসহ আরো ৪ থেকে ৫ জন মিলে ডেভিডের প্রেমিকার সঙ্গে ম্যাসেঞ্জারে কথা বলাকে কেন্দ্র করে অতর্কিতভাবে মুনের উপর হামলা করে। পরে ওইদিন দুপুর ১ টায় মুন তার বন্ধুদের নিয়ে কোতয়ালী থানার উদ্দেশ্যে রওনা দিলে আসামি ডেভিড, জাহিদুল ইসলাম ও অর্পন সাহা শান্তসহ ১৫ থেকে ২০ জন লাঠিসোঠা নিয়ে পুনরায় মুনসহ তার বন্ধুদের উপর হামলা করে মারধর করে। 
 
এছাড়া ওই দিনই রাত সাড়ে ৮ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনারের সামনে ফের মেহেদী হাসান মুনের উপর অর্পন সাহা শান্তসহ অজ্ঞাতনামা ১০ থেকে ১২ জন মিলে ধারালো চাকু ও হাতুরি  দিয়ে মাথার পিছনে আঘাত করে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। পরে মুনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
 
এবিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল বলেন, আমরা দুই পক্ষ থেকেই অভিযোগ পেয়েছি। তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
 
এর আগে গত ১ জুন জবি ছাত্রলীগের সকল সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিত করে কেন্দ্রীয় কমিটি। এ কমিটি স্থগিত হওয়ার পেছনে ক্যাম্পাসের সকল টেন্ডার সভাপতি ইব্রাহিম ও সাধারণ সম্পাদক আকতারের নিয়ন্ত্রণে রাখা, মীর কাশেমের প্রতিষ্ঠানকে টেন্ডার দেয়া, রাষ্ট্রপতির ছেলের ড্রাইভারকে মারধর, নারী কেলেঙ্কারি ও চাঁদাবাজিকে দুষছেন অন্যান্য পদধারী নেতারা।

এমএসএম / জামান

কুবিতে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত

সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ দমনে ইবি ছাত্রলীগের কালো পতাকা মিছিল

জবিতে নীল দলের সেমিনার ও মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত

ববির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক দপ্তরের অব্যবস্থাপনায় ভোগান্তিতে শিক্ষার্থীরা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিচালনা করবে জেলা প্রশাসক, এটি গুজব

নোবিপ্রবিতে অভিযুক্ত শিক্ষকের পক্ষে স্বাক্ষর দিতে শিক্ষার্থীদের চাপ প্রয়োগের অভিযোগ

গুচ্ছের ‘বি’ ইউনিটে প্রথম দিগন্ত বিশ্বাস, পড়তে চান অর্থনীতি

জাতীয় শোকদিবস স্মারক বিতর্ক প্রতিযোগিতায় বিজয়ী নোয়াখালী জিলা স্কুল

ইউএস-বাংলা মেডিকেল কলেজে জাতীয় শোক দিবস উদযাপন

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার কুশীলবদের বংশধরেরা এখনও সক্রিয়

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি, আটক আকতারুলের রিমান্ড নামঞ্জুর

গুচ্ছের 'বি' ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাশ ৫৬.২৬ শতাংশ

অ‌মিত রায় চৌধু‌রী খু‌বির নতুন ট্রেজারার